আইটি শিক্ষা মেনু

গুগল ব্যবহারকারীর যে ১০ দশটি ইউআরএল জানা উচিত

আপনার গুগল অ্যাকাউন্টে কোন ওয়েবসাইট বা অ্যাপস নিয়মিত প্রবেশ করছে? গুগল আপনার সম্পর্কে কি জানে ? আপনি যখন গুগল সার্চ করছেন কোন বিজ্ঞাপন বা কোন ওয়েবসাইটের লিংকে ক্লিক করছেন ? অধিকাংশ তথ্যই গুগলের কাছে রয়েছে।

শুধূ তাই নয়, আপনি কোন জায়গায় বেড়াতে গেছেন, আপনার আগ্রহের বিষয় কি ? আপনি কি কি বিজ্ঞাপনে ক্লিক করেছেন প্রায় সব তথ্যই গুগলের কাছে রয়েছে !!!

এখানে কিছু লিংক প্রকাশ করা হল যা প্রত্যেক গুগল ব্যবহারকারীর জানা প্রয়োজন। এই ঠিকানা গুলো আপনার গুগলের ড্যাশবোর্ডের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে।

প্রয়োজনীয় ১০ টি ইউআরএল গুগলব্যবহারকারীর জন্য

১. আমরা গুগল ক্রোম বা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নিদিষ্র্ট ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে থাকি ।গুগলের নিদির্ষ্ট ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে সেই পাসওয়ার্ড ও ইউজারনেইম সংরক্ষিত থাকে ।

গুগল ইউআরএল : https://passwords.google.com

২.আপনি যে সকল ওয়েবসাইটে ভিজিট করেন সে সকল ওয়েবসাইট ও অন্যান্য বিষয়ের উপর নির্ভর করে গুগল আপনার জন্য একটি প্রোফাইল তৈরী করে । গুগল চেষ্চা করে আপনার আগ্রহের বিষয় কি , আপনার বয়স কত, আপনি ছেলে নাকি মেয়ে তা অনুমান করার। এই অনুমানের উপর ভিত্তি করে গুগল আপনার সাথে সঙ্গতি পুর্ণ বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখায়। নিচের ঠিকানায় গিয়েই দেখুন না ।

ঠিকানা : https://www.google.com/ads/preferences/

৩.গুগলের সংরক্ষিত সব তথ্য আপনি চাইলে গুগল থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন । আপনার গুগল ফটো, যোগাযোগের ঠিকানা, জিমেইলের মেসেজ এমনকি আপনার ইউটিউব ভিডিও সমুহ। আপনার তথ্য সমুহ ডাউনলোড করার জন্য নিচের ইউআরএলটি ব্যবহার করুন।

https://www.google.com/takeout

৪. মনে করুন আপনার ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট অন্য কেউ কপি করে ফেলেছে । তারা যদি গুগলের কোন সেবা গ্রহন করে থাকে আপনি তাদের বিরুদ্ধে ডিএমসিএ অভিযোগ আনতে পারবেন । এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে গুগল সেই ওয়েবসাইটের নির্ধারিত আর্টিকেল বা নিবন্ধ সার্চের ফলাফল থেকে মুছে দিবে ।

https://support.google.com/legal

৫. আপনার অ্যান্ড্রয়েডে যদি লোকেশন সার্ভিস অন থাকে আপনি এই মুহুর্তে কোন জায়গায় আছেন, বা কত বেগে অন্য কোথাও যাচ্ছেন তা খুব সহজে গুগল ম্যাপের মাধ্যমে খুজে বের করা সম্ভব । শুধু এই মুহুর্তের নয় বরং পুর্বের যেকোন তথ্য ও গুগলের কাছে নথিবদ্ধ থাকে । আপনি গুগল আর্থ বা গুগল ড্রাইভের সহায়তায় খুব সহজে দেখতে পারবেন ।

https://maps.google.com/locationhistory

৬. আপনার কোম্পানির বা প্রতিষ্ঠানের ইমেইল অ্যাড্রেসটি চাইলে গুগলের সহায়তায় খুলতে পারবেন । সাধারণত গুগলের নিয়মিত সাইন আপ এ আমরা ইউজার নেমে @gmail.com ব্যবহৃত হয়। তবে নিচের ইউআরএলটি ব্যবহার করে আপনি খুব সহজে যেকোন ইউজারনেম ব্যবহার করতে পারি।

https://accounts.google.com/SignUpWithoutGmail

৭. গুগল এবং ইউটিউর আপনার প্রত্যেকটি সার্চ আইটেম বা শব্দ জমা রাখে। আপনি কোন ওয়েবসাইটে ক্লিক করেছেন , কোন ভিডিও দেখেছেন সবই জমা খাকে গুগলের কাছে। এমনকি আপনি যদি শব্দ দিয়ে সার্চ করেন তারও হদিস পাওয়া যাবে গুগলের কাছে । বিশ্বাস হচ্ছে না তাহলে নিচের ঠিকানা গুলো দেখুন

https://history.google.com
https://history.google.com/history/audio
https://www.youtube.com/feed/history

৮. প্রতি ৯ মাসের মধ্যে আপনাকে কমপক্ষে একবার গুগলে লগইন করতে হবে । আপনি যদি লগইন না করে তবে গুগলের নিয়ম অনুযায়ী আপনার অ্যাকাউন্টটি নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে। আপনি যদি অনেকগুলো গুগল অ্যাকাউন্ট নিয়ে কাজ করেন তবে এই সমস্যা থেকে মুক্তে পেতে পারেন খুব সহজেই গুগল অ্যালার্ট সার্ভিস ব্যবহার করে। নিচের ঠিকানায় প্রবেশ করে আপনার মোবাইল ও ইমেইল অ্যাড্রেসটি লিখুন। আপনার মোবাইলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে একটি মেসেজ চলে যাবে নিদির্ষ্ট সময়ের পর।
https://www.google.com/settings/account/inactive

৯. আপনি কি আপনার গুগল অ্যাকাউন্টের সিকিউরিটি নিয়ে চিন্তিত ? আপনার যদি মনে হয় আপনার গুগল অ্যাকাউন্টটি অন্য কেউ ব্যবহার করছে তাহলে আপনার জন্য নিচের ইউআরএলটি । এখানে আপনার অ্যাকাউন্টে কোন কোন ডিভাইস থেকে লগইন করা হয়েছে, কোন আইপি থেকে লগইন করা হয়েছে, তাদের সম্ভাব্য অবস্থান সবই দেখতে পাবেন ।
https://security.google.com/settings/security/activity

১০. নিচের ঠিকানায় গুগলরে বিভিন্ন অ্যাপস ও এক্সটেনশন পাবেন যা আপনার গুগল অ্যাকাউন্টের সাথে সম্পর্কিত । এই ঠিকানাটি মুলত আপনি গুগল ব্যবহার করে যে সকল সাইটে সাইন ইন করেছেন তা নির্দেশ করে।

https://security.google.com/settings/security/permissions

একজন গুগল ব্যবহারকারী হিসাবে আপনার উপের সকল ইউআরএর সম্পর্কে অবশ্যই ধারনা রাখা উচিত ।

এই বিষয়ে আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন

মেহের নিগার
চলার পথে কখন প্রযুক্তির সাথে যুক্ত হয়েছি জানি না । আইটি শিক্ষায় আমাকে প্রযুক্তির পথে দিয়েছে উৎসাহ আর অনুপ্রেরনা। তাই আইটি শিক্ষার জন্য লিখি। ধন্যবাদ আইটি শিক্ষাকে ।

No comments

Leave a Reply

ইমেইলের মাধ্যমে আমাদের পোষ্ট সমুহ পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

ফেইসবুকে আমরা